ওপার বাংলা
দেবশ্রীকে মমতার চিরকুট!
কাগজ ডেস্ক :
Published : Wednesday, 9 August, 2017 at 6:51 PM
দেবশ্রীকে মমতার চিরকুট!অভিনেত্রী হিসাবে তুঙ্গ সময়ে এই দিনে শুভেচ্ছায় ভেসে যেতেন। বিধায়ক হওয়ার পর তা বেড়েছে। তবে মঙ্গলবার জন্মদিনের দুপুরে এক চিরকুটে আবেগে ভেসে গেলেন দেবশ্রী রায়। বিধানসভার অধিবেশনে আসনে বসে থাকা দেবশ্রীর কাছে হাতে লেখা সেই চিরকুটের প্রেরক রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়!
বিতর্কে অংশগ্রহণ না করলেও বিধানসভায় উপস্থিতিতে অনেকের থেকেই এগিয়ে দেবশ্রী। দলের অন্দরে সেই প্রশ্নে প্রশংসিতও ওই তৃণমূল বিধায়ক। নিয়মিত হাজিরার এই অভ্যাসেই জন্মদিনের দুপুরে হাতে চলে এল অপ্রত্যাশিত উপহার। অধিবেশন চলাকালীন হাতে আসা চিরকুট খুলে তিনি দেখলেন, তাতে লেখা, ‘প্রিয় দেবশ্রী, শুভ জন্মদিন। মমতাদি।’
প্রথমটায় একটু অবাক হয়েই মুখ্যমন্ত্রীর আসনের দিকে তাকালেন অভিনেত্রী। কিন্তু ততক্ষণে শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের সঙ্গে কাজের কথায় ব্যস্ত হয়ে পড়েছেন ‘দিদি’। দেবশ্রীর হাতে ‘দিদি’র লেখা শুভেচ্ছাপত্রও ততক্ষণে ঘুরছে অন্য বিধায়কদের হাতে।
সাধারণত জন্মদিনে রাজ্যের মন্ত্রী, আমলা, বিধায়কদের কাছে ছাপানো শুভেচ্ছাপত্র যায়। নবান্ন থেকে পাঠানো সেই শুভেচ্ছাপত্রের তলায় সই থাকে মমতার। এদিন অবশ্য বিধানসভার নিজের আসনে বসেই মুখ্যমন্ত্রী নোটপ্যাডে’র পাতা ছিঁড়ে তাতে লিখে দেন, ‘জন্মদিনের শুভেচ্ছা’।
দলনেত্রীর এই আন্তরিকতায় দৃশ্যতই উচ্ছ্বসিত ছিলেন দেবশ্রী। সতীর্থ বিধায়কদের অনেকেই এদিন অভিনেত্রী-বিধায়ককে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন। আর মুখ্যমন্ত্রীর চিরকুটের কথা জানাজানি হওয়ার পরে শুভেচ্ছা জানানোর মাত্রা বেড়ে গিয়েছে।
দলীয় সতীর্থদের শুভেচ্ছার সঙ্গে উপহার কী পেলেন? জবাবে দেবশ্রী তাঁর হ্যান্ডব্যাগ অল্প খুলে বোঝাচ্ছেন, দিনের সেরা উপহার রাখা আছে সেখানে। ভাজ করা চিরকুট!



সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : gramerka@gmail.com, editor@gramerkagoj.com
Design and Developed by i2soft