স্বাস্থ্যকথা
ঢামেক বার্নের আইসিইউ চলছে এসি ছাড়াই
কাগজ ডেস্ক :
Published : Wednesday, 10 May, 2017 at 7:05 PM
ঢামেক বার্নের আইসিইউ চলছে এসি ছাড়াইঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে বার্ন ইউনিটের আইসিইউ'তে গত ১ মাস ধরে সেন্ট্রাল শীতাতপ (এসি) মেশিনটি নষ্ট। জানালার গ্রিলের সঙ্গে টেবিল ফ্যান বেঁধে রোগীকে বাতাস দেওয়া হচ্ছে।
ঢামেক বার্ন ইউনিটের ২য় তলায় নিবিঢ় পর্যবেক্ষণ কেন্দ্রে ( আইসিইউ) এই দৃশ্য দেখা যায়।
চট্টগ্রামের গৃহবধু রিডার রানী সিনহাকে দগ্ধ অবস্থায় চিকিৎসার জন্য ঢামেকের বার্ন ইউনিটে নিয়ে আসে স্বজনরা। বর্তমানে তিনি ৫৮ শতাংশ বার্ন নিয়ে আইসিইউতে ভর্তি আছেন। তার নিকটতম আত্মীয় মিলন সিনহা জানান, এসি নষ্ট থাকায় রোগীকে বাতাস দেওয়ার জন্য বাইরে থেকে ১ হাজার টাকা দিয়ে টেবিল ফ্যান কিনে এনেছি। রোগীর মাথার পাশে জানালার সঙ্গে ফ্যান বেঁধে দিয়েছি। কি করবো, রোগীকে সুস্থ রাখতে হবে।
তিনি নিজেই প্রশ্ন রাখেন, এটা কোন কথা হলো, আইসিইউর এসিই নষ্ট? তাও আবার এক মাস ধরে?
বার্নের আইসিইউ'য়ের সূত্র জানায়, এখানে ১০টি বেড আছে। সেন্ট্রাল এসি নষ্ট থাকায় আইসিইউর সব জানলা ২৪ ঘণ্টা খুলে রাখা হয়। পাশাপাশি প্রতিটা রোগীর মাথার উপর একটি করে ফ্যান লাগানো হয়েছে।
সূত্রকে প্রশ্ন করা হয়, এসি নষ্ট থাকলে রোগীর কি কি অসুবিধা হয়? সূত্র জানায়, রোগীর কাছে থাকা মেশিনগুলোর তাপমাত্রা বেড়ে যায়। রোগীর ড্রেসিং করার পর ক্ষত জায়গা ঘামতে থাকে। এসি না থাকলে পানি ক্ষত স্থানে বসে যায়। এতে রোগীর বড় ধরনের ক্ষতি হওয়ার আশঙ্কা থাকে। মূলত এসি ছাড়া আইসিইউ অচল।
বার্ন ইউনিটের সমন্বয়কারী ডা. সামন্ত লাল সেনের সঙ্গে মোবাইলে কথা হলে তিনি ১ মাস ধরে এসি নষ্ট থাকার বিষয়টি স্বীকার করেন।
তিনি জানান, আজকেই এসি মেরামতের কাজ শুরু হয়েছে। এতো দিন কেন মেরামত করা হয়নি সে বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বিষয়টি এড়িয়ে যান।




সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : gramerka@gmail.com, editor@gramerkagoj.com
Design and Developed by i2soft