সারাদেশ
পুলিশের মিথ্যা মামলায় সাংবাদিকের জেল
পঞ্চগড় প্রতিনিধি :
Published : Thursday, 20 April, 2017 at 8:14 PM
পুলিশের মিথ্যা মামলায় সাংবাদিকের জেলপঞ্চগড় জেলার তেঁতুলিয়া উপজেলায় ড্রেজার বা বোমা মেশিন চলার বিরুদ্ধে সংবাদ প্রকাশ ও প্রতিবাদ করায় জেলায় কর্মরত সাংবাদিক ডিজার হোসেন বাদশাকে পুলিশের মিথ্যা মামলায় জেল হাজত।
সে গত ২০০৪ সাল থেকে পরিবেশ বিধ্বংসী ড্রেজার বা বোমা মেশিনের বিরুদ্ধে সংবাদ প্রকাশ ও প্রতিবাদ করে আসছে। বাংলাদেশের সর্বোচ্ছ আদালত পঞ্চগড় জেলায় মেশিন দিয়ে পাথর উত্তোলন নিষিদ্ধ করেছে।
গত জুলাই ২০১৬ ইং যমুনা টেলিভিশনে ড্রেজার বা বোমা মেশিন চলার বিরুদ্ধে স্থানীয় সাংবাদিক হিসেবে ডিজার হোসেন বাদশার একটি বক্তব্য প্রচার হয়। এবং সে মাসের ২৭ জুলাই তেঁতুলিয়া থানার ওসি সরেশ চন্দ্র তার উপর ক্ষুব্ধ হয়ে প্রকাশ্যে তাকে মিথ্যে মামলায় ফাঁসিয়ে দেয়ার হুমকি দিয়ে থাকে। এরপর ৭ আগষ্ট ২০১৬ তারিখে রোবিবার জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত বিশেষ মতবিনিময় সভায় তার সংগ্রহকৃত ড্রেজার বা বোমা মেশিনের ভিডিও ও বিভিন্ন তথ্যচিত্র সরবরাহ করে উপস্থাপন করে ও পুলিশি মিথ্যা মামলায় হয়রানি করার বিষয় উত্থাপন করেন।
এ সভায় তেঁতুলিয়া উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের চেয়ারম্যানরা জানান পুলিশের অসাধু কর্মকর্তদের কারনে বোমা মেশিনের রাশ টানা যাচ্ছেনা। এ সময় তেঁতুলিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বেলায়েত হোসেন, উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ইয়াছিন আলী, সাধারণ সম্পাদক কাজী ডাবলু, জেলা জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক, জেলা পাথর বালি ব্যবসায়ি সমিতির নেতা আবু সালেক, জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আনোয়ার সাদাত ড্রেজার বা বোমা মেশিন চলার প্রধান সহযোগী তেঁতুলিয়া থানার ওসি সরেশ চন্দ্র সহ থানা পুলিশকেই দায়ি করেন। এবং তার বক্তব্যসহ সভার গৃহ
ীত সিদ্ধান্ত প্রথম আলো পত্রিকাসহ দেশের বিভিন্ন জাতীয় দৈনিকে প্রকাশ হয়। এর আগে গত ৮-৬-২০১৬ তারিখে বিজিবির অভিযানে মালিক বিহিন ২টি ট্রাক্টর ও অবৈধ ৩টি বোমা মেশিন সরঞ্জামসহ আটক করে। এ অভিযানে সাংবাদিক ডিজার হোসেন বাদশা উপস্তিত থেকে সংবাদ সংগ্রহ করেন। এবং পূর্বের ঘোষণা অনুযায়ী তেঁতুলিয়া থানার ওসি সরেশ চন্দ্র বিজিবির আটককৃত ট্রাক্টর ও বোমা মেশিনের মালিক বিহীন মামলায় গত ২-১০-২০১৬ ইং চার্জশীটে ২ নাম্বার আসামি হিসেবে সাংবাদিক ডিজার হোসেন বাদশার নাম হয়রানি মূলক অন্তর ভুক্ত করেন।
এরপর ৪-২-১৭ ইং পঞ্চগড় জেলা প্রেসক্লাবে সভাপতি আনিছ প্রধান/ সম্পাদক শাহজালাল ও পঞ্চগড় প্রেসক্লাবের সভাপতি এম.এ মুকুলসহ জেলায় কর্মরত প্রায় ৫০ জন সাংবাদিক মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের জন্য জেলা প্রশাসকের সম্মিলন কক্ষে সভায় জেলা প্রশাসকের প্রতি আহব্বান জানান।
জেলা প্রশাসক বিষয়টি দেখবেন বলে সাংবাদিকদের আশ্বাস দেন। মিথ্যা মামলার প্রতিবাদে জেলায় কর্মরত বিভিন্ন গণমাধ্যম কর্মীদের পক্ষে পঞ্চগড় জেলা প্রেসক্লাব এর সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, মাননীয় মন্ত্রী স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, মাননীয়
সংসদ সদস্য পঞ্চগড়-১ ও পঞ্চগড়-২ , মহা পুলিশ পরিদর্শক (আইজিপি) ঢাকা, ডিআইজি রংপুর রেঞ্জ, পুলিশ সুপার পঞ্চগড়, সভাপতি/সম্পাদক জাতীয় প্রেসক্লাব ঢাকা, সভাপতি/সম্পাদক রিপোর্টাস ইউনিট ঢাকা বরাবর স্বারকলিপি প্রদান করা হয়েছে ।
চলমান মামলায় জামিন নিতে গিয়ে আদালত তাকে জেল হাজতে প্রেরন করেন গত ১৯-৪-১৭ ইং জামিনে মুক্তি পেয়ে সাংবাদিক ডিজার হোসেন বাদশা পুলিশের মিথ্যা মামলা থেকে অব্যাহতির জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সু দৃষ্টি কামনা করেন ।



সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : gramerka@gmail.com, editor@gramerkagoj.com
Design and Developed by i2soft