সম্পাদকীয়
মুজিবনগর দিবস
Published : Monday, 17 April, 2017 at 12:23 AM
আজ ১৭ এপ্রিল। ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস। বাঙালীর মুক্তি সংগ্রামের ইতিহাসে এই দিনটি চিরস্মরণীয়। এদিন মেহেরপুরের বৈদ্যনাথতলার আম্রকাননে বাংলাদেশের যুদ্ধকালীন সরকার শপথ গ্রহণ করে এবং স্বাধীনতার ঘোষণাপত্র পঠিত হয়। শপথ গ্রহণের পর স্থানটির নামকরণ করা হয় মুজিবনগর। সেই থেকে দিনটি ইতিহাসে পরিচিতি লাভ করে ‘মুজিবনগর দিবস’ হিসেবে। ১৭ এপ্রিল শপথ গ্রহণের মধ্য দিয়ে বাংলাদেশের যুদ্ধকালীন সরকার আনুষ্ঠানিকভাবে যাত্রা শুরু করে। ঐতিহাসিক মুজিবনগরেই স্বাধীন ও সার্বভৌম বাংলাদেশের ভিত্তি রচিত হয়েছিল।
বঙ্গবন্ধু ঘোষিত স্বাধীনতাকে বাস্তবে রূপ দিতে তৎকালীন আওয়ামী লীগের শীর্ষস্থানীয় নেতৃবৃন্দ মুজিবনগরে একত্রিত হয়েছিলেন। এদিন নবগঠিত বাংলাদেশ সরকারের শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে হাজির হয়েছিলেন দেশ-বিদেশের বহু সাংবাদিক। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব পাকিস্তানী কারাগারে বন্দী থাকায় অস্থায়ী রাষ্ট্রপতি হিসেবে শপথ নেন, দায়িত্ব গ্রহণ করেন সৈয়দ নজরুল ইসলাম। প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ নেন তাজউদ্দীন আহমদ। এছাড়া এম মনসুর আলী এবং এএইচএম কামারুজ্জামান প্রমুখ মন্ত্রী হিসেবে শপথ নেন। এই সরকারই ৯ মাসের মুক্তি সংগ্রামে নেতৃত্ব দেয়। ‘মুজিবনগর সরকার’ হিসেবেও এ সরকারের অন্য একটি পরিচয় রয়েছে। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবের অনুপস্থিতিতে প্রবাসী ‘মুজিবনগর সরকার’ বহু প্রতিকূল পরিস্থিতির মোকাবেলা করেছিল। তাদের সুযোগ্য নেতৃত্বেই জাতি ওই বছরের ১৬ ডিসেম্বর পাকিস্তানী হানাদারদের বিরুদ্ধে চূড়ান্ত বিজয় লাভ করে।
বর্তমান সরকারের আমলে ‘মুজিবনগর দিবস’ পালন নানা কারণে তাৎপর্যপূর্ণ। শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বর্তমান সরকার ‘মুজিবনগর দিবস’-এর যথাযথ মূল্যায়ন করে আসছে। এ দিবসটির পথ ধরেই বাঙালী সশস্ত্র সংগ্রামের মধ্য দিয়ে একটি স্বাধীন রাষ্ট্র কায়েম করেছে। ‘মুজিবনগর সরকার’-এর ইতিহাস স্কুলে পাঠ্যসূচীতে আরও সূচারুভাবে অন্তর্ভুক্ত হওয়া প্রয়োজন। এর ফলে আমাদের আগামী প্রজন্ম দিবসটির তাৎপর্য যথাযথভাবে অনুধাবন করতে পারবে। আমাদের মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাসকে অতীতে নানাভাবে বিকৃত করা হয়েছে, এই ইতিহাসকে ভুলিয়ে দেবার চেষ্টা কম হয়নি। মুজিবনগর দিবসের ইতিহাসসহ মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস এখন দেশবাসী বিশেষ করে তরুণ প্রজন্মের সামনে যথাযথভাবে উপস্থাপনের সুযোগ সৃষ্টি হয়েছে। ইতিহাসের বিকৃতি রোধ করা সম্ভব হয়েছে। এটা সবার জন্য সুখের কথা, স্বস্তির কথা।




সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : gramerka@gmail.com, editor@gramerkagoj.com
Design and Developed by i2soft