আন্তর্জাতিক সংবাদ
বিএসএফের গুলিতে নারীসহ নিহত ৩
আন্তর্জাতিক ডেস্ক :
Published : Sunday, 19 March, 2017 at 7:40 PM
বিএসএফের গুলিতে নারীসহ নিহত ৩দক্ষিণ ত্রিপুরায় ভারতের সীমান্তরক্ষী বিএসএফের গুলিতে নারীসহ তিন আদিবাসী নিহত হয়েছেন। তারা সবাই ভারতীয় নাগরিক বলে নিশ্চিত করেছে সে দেশের সংবাদমাধ্যম নিউ ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস।
বিএসএফের গুলিতে হতাহতদের শনাক্ত করা হয়েছে। নিহত তিনজন হলেনÑ পরাকুমার (৪০), মন কুমার (৩০) এবং স্বরলক্ষ্মী (৪০)। আহতরা হলেনÑ সুনীল কুমার (৪৭) এবং জীবন কুমার (২২)। বিএসএফ আরও দাবি করছে, তাদের কয়েকজন সদস্যও আহত হয়েছেন। সেই সঙ্গে তারা ১০টি গরু আটক করেছেন।
নিহতদের মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। স্থানীয় পুলিশ পুরো বিষয়টির তদন্ত করছে বলে জানা গেছে। ভারতের কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং এই হতাহতের ঘটনায় দুঃখ প্রকাশ করেছেন। বিএসএফের মহাপরিচালককে এই ঘটনায় বিস্তারিত তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।
বিএসএফের দাবি, সীমান্তে গরু পাচারকে কেন্দ্র করে ওই হত্যাকা-ের ঘটনা ঘটে। তবে স্থানীয়রা এই হত্যাকা-ের নেপথ্যে একজন আদিবাসী নারীকে বিএসএফ কর্তৃক যৌন নিপীড়নের অভিযোগ তুলেছে। এ ঘটনায় বিএসএফের পক্ষ থেকে একটি অভ্যন্তরীণ তদন্তের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।
বিএসএফের ভাষ্যমতে, প্রায় ৩০-৪০ জনের একটি দল গত শুক্রবার গরু পাচার করার চেষ্টা করছিল। তাদের ৩১ নম্বর ব্যাটালিয়নের দুই রক্ষী ওই কথিত পাচারকারীদের বাধা দিলে তারা বিভিন্ন দেশীয় অস্ত্র দিয়ে পাল্টা আক্রমণ করে। প্রথমে শূন্যে দুই রাউন্ড গুলি চালান বিএসএফ সদস্যরা,কিন্তু পরে নিজেদের প্রাণ বাঁচাতে গুলি চালাতে বাধ্য হন।
প্রসঙ্গত ২০১১ সালে বিএসএফ ও বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) পাচারকারী ও অবৈধপথে সীমান্ত পার হওয়া মানুষদের ক্ষেত্রে প্রাণঘাতি অস্ত্র ব্যবহার না করার চুক্তি স্বাক্ষর করে। এ চুক্তির ফলে গত কয়েক বছর ধরে সীমান্তে নিহতের ঘটনা কমে আসে। তবে ২০১৫ সালের এপ্রিলে সীমান্ত সফরকালে রাজনাথ সিং দাবি করেছিলেন গরু চোলাচালান ৯০ শতাংশ কমিয়ে আনবেন।
বিএসএফ সূত্রের বরাতে ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস সে সময় জানায়, গরু আটকের চাইতে পাচারকারীদের প্রতি বিএসএফের আক্রমণাত্মক মনোভাবের কারণেই পাচার কমে এসেছে। দুই হাজার রুপির বিনিময়ে পাচারকারীরা সীমান্ত দিয়ে গরু পাচার করে। এ অল্প টাকার জন্য এখন অনেকেই জীবনের ঝুঁকি নিতে চায় না।
বাংলাদেশে মাংস খাতের একটা বড় অংশই আসে পার্শ্ববর্তী দেশ ভারত থেকে আর এর প্রায় ৯০ শতাংশই অবৈধ পথে আসে বলে মনে করা হয়। এসব গরুর একটা বড় অংশ পাঞ্জাব, হরিয়ানা ও গুজরাট থেকে উত্তর প্রদেশ হয়ে পশ্চিমবঙ্গ সীমান্ত দিয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করে। উত্তর প্রদেশে নতুন বিজেপি সরকার ক্ষমতায় আসায় তা আরও কষ্টকর হয়ে উঠতে পারে। সূত্র: নিউ ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস, ডিএনএ।




সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : gramerka@gmail.com, editor@gramerkagoj.com
Design and Developed by i2soft