সারাদেশ
নাটোরে চাঁদাবাজী বন্ধের দাবিতে ইজিবাইক চালকদের বিক্ষোভ : দুই চাঁদা আদায়কারী আটক
তাপস কুমার, নাটোর :
Published : Sunday, 19 March, 2017 at 7:27 PM
নাটোরে চাঁদাবাজী বন্ধের দাবিতে ইজিবাইক চালকদের বিক্ষোভ : দুই চাঁদা আদায়কারী আটকনাটোরে অটোবাইক মালিক সমিতির কল্যাণ তহবিলের নামে চাঁদাবাজী বন্ধের দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল, থানার ও পৌরসভার সামনে অবস্থান কর্মসূচী পালন করেছে অটোবাইক চালকরা।
রোববার দুপুরে নাটোর পৌরসভা ভবন ঘেরাও করে পৌর এলাকার ভিতরে অবৈধ ভাবে চাঁদা আদায় বন্ধের দাবী জানায় অটোবাইক চালকরা। এসময় মেয়র উমা চৌধুরী জলি অটোবাইকে চাঁদাবাজি বন্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের আশ্বাস দিয়ে থানার সরণাপন্ন হওয়ার জন্য পরামর্শ দেন। পরে অটোবাইক চালকরা সেখান থেকে একটি বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে সদর থানার সামনে অবস্থান নেয়।
সেখানে সংক্ষিপ্ত সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, অটোবাইক চালক আজাদ হোসেন, আক্তার হোসেন, মিলন শেখ, ইশারত আলী, জিলানীসহ আরো অনেকে। সমাবেশে তারা অভিযোগ করেন, নাটোর সদর থানা অটোবাইক মালিক সমিতির নাম দিয়ে স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলর নান্নু শেখের নেতৃত্বে শহরের বিভিন্ন পয়েন্টে অবস্থান নিয়ে পৌর এলাকার অটোবাইক চালকদের কাছ থেকে মাসে ২শ' টাকা এবং শহরের বাহিরের গাড়ি থেকে প্রতিদিন ২০ টাকা করে চাঁদা আদায় করা হচ্ছে। এছাড়া অটোবাইক মালিকদের ওই কতিথ সংগঠনের সদস্য হতে বাধ্য করা হচ্ছে। কেউ সদস্য হতে না চাইলে তাকে নির্যাতন করা হয়। অথচ এই সংগঠনের বৈধ কোন কাগজপত্র নেই। উপরোন্ত রেজিস্ট্রিবিহীন ভুয়া সংগঠন করে তারা কল্যাণ তহবিলের নামে অটোবাইক মালিক-চালকদের কাছ থেকে লাখ লাখ টাকা আদায় করে ভাগ বাটোয়ারা করে নিচ্ছে তারা। সমাবেশে বক্তারা এসব চাঁদাবাজী বন্ধে পুলিশের হস্তক্ষেপ দাবি করেন।
এসময় নাটোর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মশিউর রহমান উপস্থিত অটোবাইক চালকদের  কাছ থেকে চাঁদাবাজি বন্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের আশ্বাস দিলে তারা অবস্থান থেকে সড়ে দাঁড়ান। ওসি ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, এই বিষয়ে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের চালকদের লিখিত অভিযোগ দিতে বলা হয়েছে। ইতিমধ্যে তারা লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন এবং দুই জনকে আটকও করা হয়েছে। তারা হলেন, বেজপাড়া এলাকার জয়নাল আবেদীনের ছেলে জলিল (৩৮) ও বড় হরিশপুর এলাকার মৃত সাবের আলীর ছেলে আবু তালেব (৪৫)। বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলে জানান তিনি। নাটোরে চাঁদাবাজী বন্ধের দাবিতে ইজিবাইক চালকদের বিক্ষোভ : দুই চাঁদা আদায়কারী আটক
নাটোর পৌরসভার মেয়র উমা চৌধুরী জলি জানান, পৌর এলাকার মধ্যে  ইজিবাইক চালকদের কাছ থেকে টাকা আদায়ে কাউকে দায়িত্ব দেওয়া হয়নি এবং কোন সমিতির লাইসেন্স দেওয়া হয়নি। কেউ টাকা আদায় করে থাকলে তা সম্পূর্ণ অবৈধ। অবৈধ ভাবে টাকা উত্তোলন বন্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।
এবিষয়ে জানাতে নাটোর পৌরসভার ৩নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর নান্নু শেখের সাথে (০১৭৫৯২৫৩৬৭১) একাধিকবার যোগাযোগ করেও তাকে পাওয়া যায়নি।
এদিকে অটোবাইক মালিক সমিতির কল্যাণ তহবিলের নামে চাঁদাবাজী বন্ধের দাবিতে অটোবাইক চালকদের পক্ষে মিলন শেখ নামে এক অটোবাইক চালক সরাষ্ট্রমন্ত্রী সহ প্রশাসনের বিভিন্ন স্তরে লিখিত আবদেন দিয়েছেন।




আরও খবর
সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : gramerka@gmail.com, editor@gramerkagoj.com
Design and Developed by i2soft