সম্পাদকীয়
বদরুলের যাবজ্জীবন ও আদালতের পর্যবেক্ষণ
Published : Friday, 10 March, 2017 at 12:20 AM
সিলেটের বহুল আলোচিত কলেজছাত্রী খাদিজা আক্তার নার্গিসকে হত্যাচেষ্টা মামলার একমাত্র আসামি বদরুল আলমের যাবজ্জীবন কারাদ- দিয়েছেন আদালত। এসময় বদরুলকে পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা ও অনাদায়ে আরো ২ মাসের বিনাশ্রম কারাদ- দেয়া হয়েছে। গতকাল দুপুর ১২টার দিকে সিলেট মহানগর দায়রা জজ আদালতের বিচারক আকবর হোসেন মৃধা এ মামলার রায় ঘোষণা করেন।  
৮ মার্চ বাংলাদেশসহ সারা বিশ্বব্যাপী আন্তর্জাতিক নারী দিবস পালিত হয়েছে। এই দিবসেই নারী নির্যাতনের একটি আলোচিত মামলার রায় এলো। গত বছরের ৩ অক্টোবর সিলেট এমসি কলেজে পরীক্ষা দিয়ে বের হওয়ার সময় বদরুল আলমের হামলার শিকার হন ওই কলেজের ছাত্রী খাদিজা। গুরুতর আহত অবস্থায় খাদিজাকে প্রথমে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ও পরে ঢাকার স্কয়ার হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। র্দীর্ঘ চিকিৎসার পর খাদিজা এখন সুস্থ হলেও সারাজীবন তাকে শরীর ও মনে এই ক্ষত বয়ে বেড়াতে হবে। পরিবারসহ দেশবাসীর দাবি ছিল অভিযুক্ত বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি। সেটি নিশ্চিত হয়েছে। কিন্তু বিচার শেষ হওয়ার আরো ধাপ বাকি আছে। সেগুলো পার হয়ে বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি বহাল থাকবে- এটিই দেখতে চায় দেশের মানুষজন।
বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি নিশ্চিত করার পাশাপাশি ভাবতে হবে আরো পারিপার্শ্বিক নানা বিষয়ে। একটি অসহিষ্ণু সমাজ ব্যবস্থার দিকে কি আমরা এগুচ্ছি? কেন একের পর এক ঘটছে এসব বর্বরতা, পৈশাচিকতা। গলদটা কোথায়? আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীকে তো তাদের দায়িত্ব পালন করতেই হবে। পাশাপাশি সমাজ বিশ্লেষকদের খুঁজে বের করতে হবে সমাজে কেন বদরুলরা সৃষ্টি হচ্ছে। এভাবে যদি বদরুলদের সংখ্যা বাড়তে থাকে তাহলে আমরা শেষ পর্যন্ত কোথায় গিয়ে দাঁড়াবো? এছাড়া রায় শেষে আদালত থেকে কারাগারে নেয়ার সময় বদরুল ‘রায়ে তার কিছুই হবে না’ বলে যে দম্ভোক্তি করেছে এটাও কিন্তু শঙ্কার জন্ম দিচ্ছে।




সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : gramerka@gmail.com, editor@gramerkagoj.com
Design and Developed by i2soft